প্রাথমিক বিদ্যালয় এর শিক্ষার্থীর তথ্য PEMIS Portal এ আপডেট করার পদ্ধতি ২০২৩

দেশের সকল প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীর তথ্য আপডেট করার জন্য প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় একটি নোটিশ জারি করেছে।  নোটিশে বলা হয়েছে ২০২৩ সালে অধ্যানরত সকল শিক্ষার্থীর তথ্য ধর্মভিত্তিক ও জাতি ভিত্তিক আগামী 28 ফেব্রুয়ারির  মধ্যে প্রদান করতে হবে।  প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় কর্তৃক জারিতে নোটিশটিতে যা বলা হয়েছে নিচের তা হুবহু তুলে ধরা হলো- 

উপর্যুক্ত বিষয়ের পরিপ্রেক্ষিতে জানানো যাচ্ছে যে, প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের PEMIS System এ ২০২৩ সালের বিদ্যালয় পর্যায়ের শিক্ষার্থীর তথ্য আপডেট এর জন্য উন্মুক্ত করা হয়েছে। বিদ্যালয় পর্যায় হতে প্রদত্ত ডাটা এর মাধ্যমে PEMIS System হতে ২০২৪ সালের পাঠ্যপুস্তকের চাহিদা নিরুপন করা হবে। পাঠ্যপুস্তকের চাহিদা নিরুপনের নিমিত্ত সকল পর্যায়ের বিদ্যালয় হতে ২০২৩ সালের শিক্ষার্থীর সারাংশ সংক্রান্ত (ধর্ম ভিত্তিক, ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠী ভিত্তিক) তথ্য প্রদান এর বিষয়টি নিশ্চিত করা জরুরী। 

এমতাবস্থায়, আগামী ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৩ এর মধ্যে সকল বিদ্যালয় পর্যায় হতে ২০২৩ সালের শিক্ষার্থীর সারাংশ ipemis System এ এন্ট্রর বিষয়টি নিশ্চিত করার জন্য সকল উপজেলা শিক্ষা অফিসারকে অনুরোধ করা হলো।

প্রাথমিক বিদ্যালয় এর শিক্ষার্থীর তথ্য PEMIS Portal এ  আপডেট করার পদ্ধতি ২০২৩

PEMIS সিস্টেমে শিক্ষার্থীর তথ্য আপডেট করার পদ্ধতি 

অনলাইনে শিক্ষার্থীর তথ্য আপডেট করার জন্য প্রধান শিক্ষক তার ইউজার আইডি এবং পাসওয়ার্ড ব্যবহার করে প্রথমেই pemis  সিস্টেমে লগইন করবেন। 

সিস্টেমে লগইন হয়ে গেলে প্রধান শিক্ষক তার ড্যাশবোর্ডের মেনু থেকে শিক্ষার্থীর সারাংশ অপশনে প্রবেশ করবেন। 

প্রধান শিক্ষক বিদ্যালয় শিক্ষার্থীর সারাংশ অপশনটি দেখতে পারবেন সাইট মেনুতে।  এই অপশন থেকে প্রধান শিক্ষক তার বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের সকল তথ্য আপডেট করতে পারবেন।  উল্লেখ থাকে যে প্রতি ক্লাসে মোট শিক্ষার্থীর সংখ্যার সাথে প্রতি বিভাগের শিক্ষার্থীর সংখ্যার অবশ্যই সামঞ্জস্য থাকতে হবে। 

শিক্ষার্থীর তথ্য PEMIS Portal এ  আপডেট করার পদ্ধতি ২০২৩

শিক্ষার্থীর সারাংশ অপশনে প্রথমে শ্রেণী অনুযায়ী শিক্ষার্থীর সংখ্যা এই অপশনটি দেখতে পারবেন।  এই অপশনে শ্রেণী অনুযায়ী বিভিন্ন শ্রেণীর মোট শিক্ষার্থীর সংখ্যা এখানে লিখবেন। 

READ MORE: IPEMIS login dpe gov bd ফরম পূরণ করতে প্রয়োজনীয় কাগজ পত্র 

একাধিক পাঠদান মাধ্যম বিশিষ্ট বিদ্যালয় সমূহের জন্য পাঠদান মাধ্যমের তালিকা নিচে পাবেন।  এখানে বিভিন্ন মাধ্যমে অধ্যায়নরত শিক্ষার্থীর সংখ্যা ওই শ্রেণীর মোট শিক্ষার্থীর সংখ্যার সমান হতে হবে। 

পরবর্তী সবটিতে আপনি জেন্ডার অনুযায়ী শিক্ষার্থীর সংখ্যা প্রবেশ করাবেন।  অর্থাৎ প্রতি শ্রেণীতে ছেলের সংখ্যা এবং মেয়ের সংখ্যা আলাদা আলাদা ভাবে প্রবেশ করাতে হবে অবশ্যই ছেলে এবং মেয়ের সংখ্যা ওই শ্রেণীতে অধ্যানরত মোট শিক্ষার্থীর সংখ্যার সমান হতে হবে। 

পরবর্তী ছক এ ধর্ম অনুযায়ী শিক্ষার্থীর সংখ্যা চাওয়া হয়েছে। এখানে আপনি প্রতি শ্রেণীতে অধ্যয়নরত ইসলাম ধর্ম, হিন্দু ধর্ম, খ্রিস্টান ধর্ম, বৌদ্ধ ধর্ম ও অন্যান্য ধর্ম অনুযায়ী শিক্ষার্থী সংখ্যা প্রদান করবেন।  উল্লেখ্য যে প্রতি ক্লাসে ধর্মভিত্তিক শিক্ষার্থীর সংখ্যা এখানে লিখতে পারবেন, যা অবশ্যই প্রতিটি ক্লাসের মোট শিক্ষার্থীর সংখ্যা সমান হতে হবে।

ধর্ম ভিত্তিক শিক্ষার্থীর সংখ্যা প্রদান করার শেষ হলে পরবর্তী ছকে যাওয়া হয়েছে বিশেষ চাহিদা অনুযায়ী শিক্ষার্থীর সংখ্যা।  আপনার বিদ্যালয় যদি বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন শিক্ষার্থী থেকে থাকে তাহলে সেই তথ্যগুলো এখানে প্রদান করুন।  প্রতিটি ক্লাসের বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন শিক্ষার্থীর সংখ্যা এই শকে লিখতে হবে। 

এরপরের চোখে চাওয়া হয়েছে উপজাতি অথবা ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী অনুযায়ী শিক্ষার্থীর সংখ্যা।  এখানে আপনি বিভিন্ন উপজাতি যদি আপনার বিদ্যালয় করে থাকে তাহলে তাদের তথ্য প্রদান করবেন।

এখন প্রতিটি শ্রেণিতে নতুন ভর্তিকৃত, একই শ্রেণিতে পুনরাবৃত্ত/রিপিটিং ও পূর্বের শ্রেণি হতে উন্নিত শিক্ষার্থীর সংখ্যা আপডেট করতে হবে।

প্রথমে আপনি নতুন ভর্তি কে তো শিক্ষার্থীর সংখ্যা প্রদান করবেন। এরপর একই শ্রেণীতে অধ্যায়নরত যদি কোন শিক্ষার্থী থাকে তবে তাদের সংখ্যা উল্লেখ করবেন।  এবং পরের ধাপে আপনি পূর্বের শ্রেণী হতে উন্নীত শিক্ষার্থীর সংখ্যা উল্লেখ করবেন।  এই সংখ্যাগুলোর যোগফল মোট শিক্ষার্থীর সংখ্যার সমান হতে হবে। 

এরপরের যে অংশটি রয়েছে সেটি শুধুমাত্র প্রথম শ্রেণীর জন্য প্রযোজ্য।  প্রাথমিক শ্রেণী সমাপ্ত করে কিংবা সরাসরি প্রথম শ্রেণীতে ভর্তি শিক্ষার্থীর তথ্য এখানে আপডেট করতে হবে।  প্রথমে আপনার কাছে যাওয়া হয়েছে প্রাথমিক না পড়ে সরাসরি বিদ্যালয়ে প্রথম শ্রেণীতে ভর্তি শিক্ষার্থী সংখ্যা কত সেই তথ্য প্রদান করুন।

এখন অন্য বিদ্যালয় হতে প্রাক-প্রাথমিক সমাপ্ত করে  আপনার বিদ্যালয়ে প্রথম শ্রেণীতে কতজন শিক্ষার্থী ভর্তি হয়েছে সেই সংখ্যা উল্লেখ করুন।

এবং সবশেষে আপনার বিদ্যালয়ের প্রাথমিক সমাপ্ত করে কতজন শিক্ষার্থী প্রথম শ্রেণীতে ভর্তি হয়েছে সেই সংখ্যাটি উল্লেখ করুন।

শিক্ষার্থী তত্ত্ব আপডেট করার সময় কিছু অংশ পূরণ করে আপনার পুরান কৃত অংশটি ড্রাফ্ট আকারে রেখে দিতে পারেন।  পরবর্তীতে আবার সেখান থেকেই শুরু করতে পারবেন।  আপনার সকল তথ্য পূরণ করা শেষ হলে পরবর্তী ধাপ এ ক্লিক করুন। সাবমিট বাটনে ক্লিক করে আপনার শিক্ষার্থীর তথ্য সাবমিট করুন। 

এভাবেই আপনার বিদ্যালয়ের অধ্যয়নরত সকল শিক্ষার্থীর তথ্য pemis  পোর্টালে আপডেট করতে হবে।

About admin

Check Also

IPEMIS এ অনুমোদিত শিক্ষক পদ সংখ্যা সংশোধন

প্রাথমিকের IPEMIS এ অনুমোদিত শিক্ষক পদ সংশোধন করার পদ্ধতি

IPEMIS এ অনুমোদিত শিক্ষক পদ সংশোধন করবেন কিভাবে?  এটি নিয়ে অনেকেই দ্বিধায় পড়ে যান।  আপনার …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *