বিসিএস পরীক্ষা পদ্ধতি ও সিলেবাস ২০২২। BCS SYLLABUS AND EXAM PROCEDURE

বিসিএস পরিক্ষা সকলের জন্য একটি স্বপ্নের চাকুরির পরিক্ষা। বাংলাদেশের লক্ষ্য শিক্ষিত তরুন তরুনী প্রতি বছর এই নিয়োগ পরিক্ষায় অংশ নিচ্ছেন। বিসিএস পরিক্ষায় ভালো করতে হলে আপনাকে বিসিএস পরীক্ষার সিলেবাস ও পরীক্ষা পদ্ধতি সম্পর্কে ধারণা রাখতে হবে। গত ৩০ নভেম্বর ৪৫ তম বিসিএস নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে বাংলাদেশ পাবলিক সার্ভিস কমিশন। আগামী ১০ ডিসেম্বর ২০২২ থেকে ৩১ ডিসেম্বর ২০২২ পর্যন্ত চাকরী প্রত্যাশী বাংলাদেশের নাগরিক ৪৫ তম বিসিএস এ আবেদন করতে পারবেন। 45 BCS Apply করার পদ্ধতি দেখুন। 

বিসিএস ক্যাডার চয়েস, বিসিএস প্রিলি সিলেবাস, বিসিএস লিখিত সিলেবাস ও বিসিএস এর মৌখিক পরীক্ষা সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে আজকের পোস্ট এ। 

Table of Contents

বিসিএস (ক্যাডার) পদে নিয়োগ পরীক্ষা পদ্ধতি

বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিসে নিয়োগ পরীক্ষা গ্রহণের জন্য প্রণীত বিসিএস (বয়স, যোগ্যতা ও সরাসরি নিয়োগের জন্য পরীক্ষা) বিধিমালা-২০১৪ অনুযায়ী বিসিএস-এর নিম্নোক্ত ২৬টি ক্যাডারে উপযুক্ত প্রার্থী নিয়োগের উদ্দেশ্যে কমিশন কর্তৃক ৩ স্তরবিশিষ্ট পরীক্ষা গ্রহণ করা হয়।

বিসিএস-এর ২৬টি ক্যাডারের নাম (ইংরেজি বর্ণমালার ক্রমানুসারে)

১. বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস (প্রশাসন)  

সাধারণ ক্যাডার

মন্তব্য

২. বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস (কৃষি) কারিগরি/পেশাগত ক্যাডার বাংলাদেশ গেজেটে ১৩ নভেম্বর ২০১৮ তারিখে প্রকাশিত এস.আর.ও. নম্বর-৩৩৫-আইন/২০১৮ অনুযায়ী বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস (ইকোনমিক) ক্যাডারকে বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস (প্রশাসন) ক্যাডারের সাথে একীভূত করা হয়েছে।
৩. বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস (আনসার) সাধারণ ক্যাডার
৪. বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস (নিরীক্ষা ও হিসাব) সাধারণ ক্যাডার
৫. বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস (সমবায়) সাধারণ ক্যাডার
৬. বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস (শুল্ক ও আবগারি) সাধারণ ক্যাডার
৭. বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস (পরিবার পরিকল্পনা) সাধারণ ক্যাডার
৮. বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস (মৎস্য) কারিগরি/পেশাগত ক্যাডার
৯. বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস (খাদ্য) সাধারণ এবং কারিগরি/পেশাগত ক্যাডার
১০. বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস (পররাষ্ট্র) সাধারণ ক্যাডার
১১. বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস (বন) কারিগরি/পেশাগত ক্যাডার
১২. বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস (সাধারণ শিক্ষা) কারিগরি/পেশাগত ক্যাডার
১৩. বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস (স্বাস্থ্য) কারিগরি/পেশাগত ক্যাডার
১৪. বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস (তথ্য) সাধারণ এবং কারিগরি/পেশাগত ক্যাডার
১৫. বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস (পশু সম্পদ) সাধারণ এবং কারিগরি/পেশাগত ক্যাডার
১৬. বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস (পুলিশ)          সাধারণ ক্যাডার
১৭. বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস (ডাক) সাধারণ ক্যাডার
১৮. বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস (জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল) কারিগরি/পেশাগত ক্যাডার
১৯. বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস (গণপূর্ত) কারিগরি/পেশাগত ক্যাডার
২০. বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস (রেলওয়ে প্রকৌশল) কারিগরি/পেশাগত ক্যাডার
২১. বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস 

(রেলওয়ে পরিবহন ও বাণিজ্যিক)

সাধারণ এবং কারিগরি/পেশাগত ক্যাডার
২২. বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস (সড়ক ও জনপথ) কারিগরি/পেশাগত ক্যাডার
২৩. বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস (পরিসংখ্যান) কারিগরি/পেশাগত ক্যাডার
২৪. বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস (কর) সাধারণ ক্যাডার
২৫. বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস (কারিগরি শিক্ষা) কারিগরি/পেশাগত ক্যাডার
২৬. বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস (বাণিজ্য) সাধারণ এবং কারিগরি/পেশাগত ক্যাডার

বিসিএস এর তিন স্তর বিশিষ্ট পরীক্ষা পদ্ধতি

বিসিএস (বয়স, যোগ্যতা ও সরাসরি নিয়োগের জন্য পরীক্ষা) বিধিমালা-২০১৪-এর বিধান অনুযায়ী বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিসে উপযুক্ত প্রার্থী মনোনয়নের উদ্দেশ্যে সরকারী কর্ম কমিশন নিম্নোক্ত ৩ স্তর বিশিষ্ট নিয়োগ পরীক্ষা গ্রহণ করে থাকে

প্রথম স্তরঃ ২০০ নম্বরের MCQ Type Preliminary Test ।

দ্বিতীয় স্তরঃ প্রিলিমিনারি টেস্টে কৃতকার্য প্রার্থীদের জন্য ৯০০ নম্বরের লিখিত পরীক্ষা।

তৃতীয় স্তরঃ লিখিত পরীক্ষায় কৃতকার্য প্রার্থীদের জন্য ২০০ নম্বরের মৌখিক পরীক্ষা।

প্রথম স্তরঃ ২০০ নম্বরের MCQ Type Preliminary Test

শূন্য পদের তুলনায় প্রার্থী সংখ্যা বিপুল হওয়ায় লিখিত পরীক্ষার মাধ্যমে উপযুক্ত প্রার্থী বাছাই-এর জন্য বিসিএস (বয়স, যোগ্যতা ও সরাসরি নিয়োগের জন্য পরীক্ষা) বিধিমালা-২০১৪-এর বিধি-৭ অনুযায়ী বাংলাদেশ সরকারী কর্ম কমিশন ২০০ নম্বরের MCQ Type প্রিলিমিনারি টেস্ট গ্রহণ করে থাকে। ৩৪তম বিসিএস পরীক্ষা পর্যন্ত ১০০ নম্বরে প্রিলিমিনারি টেস্ট গ্রহণ করা হতো। বিসিএস পরীক্ষা বিধিমালা-২০১৪-এর বিধানমতে ৩৫তম বিসিএস পরীক্ষা হতে ২০০ নম্বরের ২ ঘণ্টা সময়ে ১০টি বিষয়ের উপর MCQ Type প্রিলিমিনারি টেস্ট গ্রহণের ব্যবস্থা প্রবর্তন করা হয়েছে।

বিসিএস প্রিলিমিনারি টেস্ট-এর বিষয় ও নম্বর বণ্টন

ক্রমিক নম্বর বিষয়ের নাম নম্বর বণ্টন
১. বাংলা ভাষা ও সাহিত্য ৩৫
২. ইংরেজি ভাষা ও সাহিত্য ৩৫
৩. বাংলাদেশ বিষয়াবলি ৩০
৪. আন্তর্জাতিক বিষয়াবলি ২০
৫. ভূগোল (বাংলাদেশ ও বিশ্ব), পরিবেশ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ১০
৬. সাধারণ বিজ্ঞান ১৫
৭. কম্পিউটার ও তথ্য প্রযুক্তি ১৫
৮. গাণিতিক যুক্তি ১৫
৯. মানসিক দক্ষতা ১৫
১০. নৈতিকতা, মূল্যবোধ ও সু-শাসন ১০
মোট ২০০

বিসিএস প্রিলিমিনারি টেস্ট এর বিস্তারিত সিলেবাস দেখুন

বাংলা ভাষা ও সাহিত্য

পূর্ণমান : ৩৫

 

ভাষা:                                                                   ১৫ নম্বর

প্রয়োগ-অপপ্রয়োগ, বানান ও বাক্য শুদ্ধি, পরিভাষা, সমার্থক ও বিপরীতার্থক শব্দ,

ধ্বনি, বর্ণ, শব্দ, পদ, বাক্য, প্রত্যয়, সন্ধি ও সমাস

সাহিত্য :                                                             ২০ নম্বর

ক. প্রাচীন ও মধ্যযুগ                                              ০৫ নম্বর

খ. আধুনিক যুগ (১৮০০-বর্তমান পর্যন্ত)                  ১৫ নম্বরর

বিসিএস পরীক্ষা পদ্ধতি ও সিলেবাস ২০২২। BCS SYLLABUS AND EXAM PROCEDURE

বিসিএস পরীক্ষা পদ্ধতি ও সিলেবাস ২০২২। BCS SYLLABUS AND EXAM PROCEDURE

বাংলাদেশ বিষয়াবলি 

পূর্ণমান : ৩০

                                                                                                  মান বন্টন

১. ৰাংলাদেশের জাতীয় বিষয়াবলি :                                                     ০৬

প্রাচীনকাল হতে সম-সাময়িক কালের ইতিহাস, কৃষ্টি ও সংস্কৃতি। বাংলাদেশের স্বাধীনতা সংগ্রাম ও মহান মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস: ভাষা আন্দোলন; ১৯৫৪ সালের নির্বাচন; ছয়-দফা আন্দোলন, ১৯৬৬; গণ অভুথান ১৯৬৮-৬৯; ১৯৭০ সালের সাধারণ নির্বাচন; অসহযোগ আন্দোলন ১৯৭১; ৭ মার্চের এতিহাসিক ভাষণ; স্বাধীনতা ঘোষণা; মুজিবনগর সরকারের গঠন ও কার্যাবলি; মুক্তিযুদ্ধের রণকৌশল; মুক্তিযুদ্ধে বৃহৎ শক্তিবর্গের ভূমিকা; পাকিস্তানী বাহিনীর আত্মসমর্পণ এবং বাংলাদেশের অভ্যুদয়। 

২. বাংলাদেশের কৃষিজ সম্পদ : শস্য উৎপাদন এবং এর বহুমুখীকরণ, খাদ্য উৎপাদন ও ব্যবস্থাপনা।              ০৩ নম্বর

৩. বাংলাদেশের জনসংখ্যা, আদমশুমারি, জাতি, গোষ্ঠী ও উপজাতি সংক্রান্ত বিষয়াদি                                    ০৩ নম্বর              ৪. বাংলাদেশের অর্থনীতি : উন্নয়ন পরিকল্পনা প্রেক্ষিত ও পঞ্চবার্ষিকী, জাতীয় আয়-ব্যয়, রাজনীতি ও বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচি, দারিদ্র্য বিমোচন ইত্যাদি।                                                                                                                            ০৩ নম্বর

৫. বাংলাদেশের শিল্প ও বাণিজ্য : শিল্প উৎপাদন, পণ্য আমদানি ও রপ্তানিকরণ, গার্মেন্টস শিল্প ও এর সার্বিক ব্যবস্থাপনা, বৈদেশিক লেন-দেন, অর্থ প্রেরণ, ব্যাংক ও বীমা ব্যবস্থাপনা ইত্যাদি।                                                              ০৩ নম্বর

৬. বাংলাদেশের সংবিধান :প্রস্তাবনা ও বৈশিষ্ট্য, মৌলিক অধিকারসহ রাষ্ট্র পরিচালনার তিসমূহ, সংবিধানের সংশোধনীসমূহ।                                                                                                                                                                       ০৩ নম্বর

৭. বাংলাদেশের রাজনৈতিক ব্যবস্থা : রাজনৈতিক দলসমূহের গঠন, ভূমিকা ও কার্যক্রম, ক্ষমতাসীন ও বিরোধী দলের পারস্পরিক সম্পর্কাদি, সুশীল সমাজ ও চাপ সৃষ্টিকারী গোষ্ঠীসমূহ এবং এদের ভূমিকা।                                   ০৩ নম্বর             ৮. বাংলাদেশের সরকার ব্যবস্থা : আইন, শাসন ও বিচার বিভাগসমূহ, আইন প্রণয়ন, নীতি নির্ধারণ, জাতীয় ও স্থানীয় পর্যায়ের প্রশাসনিক ব্যবস্থাপনা কাঠামো, প্রশাসনিক পুনর্বিন্যাস ও সংস্কার।                                                                ০৩ নম্বর

৯. বাংলাদেশের জাতীয় অর্জন, বিশিষ্ট ব্যক্তি, গুরুত্বপূর্ণ প্রতিষ্ঠান ও স্থাপনাসমূহ, জাতীয় পুরস্কার, বাংলাদেশের খেলাধুলাসহ চলচ্চিত্র, গণমাধ্যম-সংগ্লিষ্ট বিষয়াদি.                                                                                                           ০৩ নম্বর

আন্তর্জাতিক বিষয়াবলি

পূর্ণমান : ২০

                                                                                                                           মান বন্টন                        

১. বৈশ্বিক ইতিহাস, আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক ব্যবস্থা, ভূ-রাজনীতি।                               ০৪

২. আন্তর্জাতিক নিরাপত্তা ও আন্তরাসত্রীয় ক্ষমতা সম্পর্ক।                                            ০৪

৩. বিশ্বের সাম্প্রতিক ও চলমান ঘটনাপ্রবাহ।                                                                ০৪

৪. আন্তর্জাতিক পরিবেশগত ইস্যু ও কুটনীতি।                                                              ০৪

৫. আন্তর্জাতিক সংগঠনসমূহ এবং বৈশ্বিক অর্থনৈতিক প্রতিষ্ঠানাদি।                             ০৪

ভূগোল (বাংলাদেশ ও বিশ্ব), পরিবেশ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা

পূর্ণমান : ১০

                                                                                                                                  মান বন্টন                        

১. বাংলাদেশ ও অঞ্চলভিত্তিক ভৌগোলিক অবস্থান, সীমানা, পারিবেশিক,                                 ০২

    আর্থ সামাজিক ও ভূ-রাজনৈতিক গুরুত্ব 

২. অঞ্চলভিত্তিক ভৌত পরিবেশ (ভূ-প্রাকৃতিক), সম্পদের বন্টন ও গুরুত্ব                                  ০২                                

৩. বাংলাদেশের পরিবেশ : প্রকৃতি ও সম্পদ, প্রধান চ্যালেঞ্জসমূহ                                               ০২

৪. বাংলাদেশ ও বৈশ্বিক পরিবেশ পরিবর্তন: আবহাওয়া ও জলবায়ু নিয়ামকসমূহের

সেক্টরভিত্তিক (যেমন অভিবাসন, কৃষি, শিল্প, মৎস্য ইত্যাদি) স্থানীয়, আঞ্চলিক ও বৈশ্বিক প্রভাব  ০২

৫. প্রাকৃতিক দুর্যোগ ও ব্যবস্থাপনা : দুর্যোগের ধরন, প্রকৃতি ও ব্যবস্থাপনা।                                   ০২

সাধারণ বিজ্ঞান

পূর্ণমান : ১৫

                                                                                                                                    মান বন্টন        

ভৌত বিজ্ঞান :                                                                                                                     ০৫পদার্থের অবস্থা, এটমের গঠন, কার্বনের বহুমুখী ব্যবহার, এসিড, ক্ষার, লবণ, পদার্থের ক্ষয়, সাবানের কাজ, ভৌত রাশি এবং এর পরিমাপ, ভৌত বিজ্ঞানের উন্নয়ন, চৌন্বকত্ব, তরঙ্গ এবং শব্দ, তাপ ও তাপগতি বিদ্যা, আলোর প্রকৃতি, স্থির এবং চল তড়িৎ, ইলেকট্রনিক্স, আধুনিক পদার্থবিজ্ঞান, শক্তির উৎস এবং এর প্রয়োগ, নবায়নযোগ্য শক্তির উৎস, পারমাণবিক শক্তি, খনিজ উৎস, শক্তির রুপান্তর, আলোক যন্ত্রপাতি, মৌলিক কণা, ধাতব পদার্থ এবং তাদের যৌগসমূহ, অধাতব পদার্থ, জারণ-বিজারণ, তড়িৎ কোষ, অজৈব যৌগ, জৈব যৌগ, তড়িৎ চৌম্বক, ট্রান্সফরমার, এক্সরে, তেজস্ক্রিয়তা ইত্যাদি।

জীব বিজ্ঞান:                                                                                                                         ০৫                                        পদার্থের জীববিজ্ঞান-বিষয়ক ধর্ম, টিস্যু, জেনেটিকস, জীববৈচিত্র, এনিম্যাল ডাইভারসিটি, প্লান্ট ডাইভারসিটি, এনিম্যাল টিস্যু, অর্গান এবং অর্গান সিস্টেম, সালোক সংশ্লেষণ, ভাইরাস, ব্যাকটেরিয়া, জুলোজিক্যাল নমেনর্রেচার, বোটানিক্যাল নমেনর্রেচার, প্রাণিজগৎ, উদ্ভিদ, ফুল, ফল, রক্ত ও রক্ত সঞ্চালন, রক্তচাপ, হৃদি এবং হৃদরোগ, ম্লায়ু এবং সলায়ুরোগ, খাদ্য ও পুষ্টি, ভিটামিন, মাইক্রোবায়োলজি, প্লান্ট নিউট্রেশন, পরাগায়ন ইত্যাদি।

আধুনিক বিজ্ঞান:                                                                                                                  ০৫

পৃথিবী সৃষ্টির ইতিহাস, কসমিক রে, ব্লাক হোল, হিগের কণা, বারিমণ্ডল, টাইড, বায়ুমণ্ডল, টেকটোনিক প্লেট, সাইক্লোন, সুনামি, বিবর্তন, সামুদ্রিক জীবন, মানবদেহ, রোগের কারণ ও প্রতিকার, সংক্রামক রোগ, রোগ জীবাণুর জীবনধারণ, মা ও শিশু স্বাস্থ্য, ইম্যুনাইজেশন এবং ভ্যাকসিনেশন, এইচআইভি, এইডস, টিবি, পোলিও, জোয়ার-ভাটা, এপিকালচার, সেরিকালচার, পিসিকালচার, হটিকালচার, ডায়োড, ট্রানজি্টর, আইসি, আপেক্ষিক তন্ত, ফোটন কণা ইত্যাদি।

কম্পিউটার ও তথ্য প্রযুক্তি

পূর্ণমান : ১৫

কম্পিউটার : ১০

  • কম্পিউটার পেরিফেরালস : কি-বোর্ড, মাউস, ওসিআর ইত্যাদি;
  • কম্পিউটারের অঙ্গসংগঠন : সিপিইউ , হার্ড ডিস্ক, এএলইউ ইত্যাদি;
  • কম্পিউটারের পারঙ্গমতা (Computer Performance);
  • দৈনন্দিন জীবনে কম্পিউটার : কৃষি, যোগাযোগ, শিক্ষা, স্বাস্থ্য, খেলাধুলা ইত্যাদি;
  • কম্পিউটারের নম্বর ব্যবস্থা (Number System of Computer);
  • অপারেটিং সিন্টেমস
  • এমবেডেড কম্পিউটার
  • কম্পিউটারের ইতিহাস
  • কম্পিউটারের প্রকারভেদ
  • কম্পিউটার প্রোগ্রাম: ভাইরাস, ফায়ারওয়াল ইত্যাদি;
  • ডেটাবেইস সিস্টেম

তথ্যপ্রযুক্তি: ০৫

  • ই-কমার্স
  • সেলুলার ডাটা নেটওয়ার্ক: টুজি, থ্রিজি, ফোরজি ,ওয়াইম্যাক্স ইত্যাদি;
  • কম্পিউটার নেটওয়ার্ক: ল্যান (LAN), ম্যান (MAN), ওয়াই-ফাই (WiFi), ওয়াইম্যাস (Wimax) ইত্যাদি;
  • দৈনন্দিন জীবনে তথ্যপ্রযুক্তি ;
  • স্মার্টফোন;
  • ওয়ার্ড ওয়াইড ওয়েব
  • ইন্টারনেট
  • নিত্য প্রয়োজনীয় কম্পিউটিং প্রযুক্তি: ই-মেইল, ফ্যাক্স ইত্যাদি
  • ক্লায়ান্ট-সার্ভার ম্যানেজমেন্ট
  • মোবাইল প্রযুক্তির বৈশিষ্ট্যসমূহ
  • তথ্যপ্রযুক্তির বড় প্রতিষ্ঠান ও তাদের সেবা/তথ্যসমূহ: গুগল, মাইক্রোসফট, আইবিএম ইত্যাদি;
  • ক্লাউড কম্পিউটিং;
  • সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং: ফেসবুক, টুইটার, ই্সটাগ্রাম ইত্যাদি;
  • রোবটিক্স
  • সাইবার অপরাধ

গাণিতিক যুক্তি

পূর্ণমান : ১৫

১. বাস্তব সংখ্যা, ল.সা.গু গ.সা.গু, শতকরা, সরল ও যৌগিক মুনাফা, অনুপাত ও সমানুপাত, লাভ ও ক্ষতি

২. বীজগাণিতিক সূত্রাবলি, বহুপদী উৎপাদক, সরল ও দ্বিপদী সমীকরণ, সরল ও দ্বিপদী অসমতা, সরল সহসমীকরণ।

৩. সূচক ও লগারিদম, সমান্তর ও গুণোত্তর অনুক্রম ও ধারা ।

৪. রেখা, কোণ, ত্রিভুজ ও চতুর্ভুজ সংক্রান্ত উপপাদ্য, পিথাগোরাসের উপপাদ্য, বৃত্ত সংক্রান্ত উপপাদ্য, পরিমিতি- সরলক্ষেত্র ও ঘনবন্তু

৫. সেট, বিন্যাস ও সমাবেশ, পরিসংখ্যান ও সম্ভাব্যতা ।

মানসিক দক্ষতা

পূর্ণমান : ১৫

  • ভাষাগত যৌক্তিক বিচার
  • সমস্যা সমাধান
  • বানান ও ভাষা
  • যান্ত্রিক দক্ষতা
  • স্থানাঙ্ক সম্পর্ক 
  • সংখ্যাগত ক্ষমতা

বিসিএস পরীক্ষা পদ্ধতি ও সিলেবাস ২০২২। BCS SYLLABUS AND EXAM PROCEDURE

BCS Written Exam Mark Distribution & Syllabus

২য় স্তরঃ  ৯০০ নম্বরের লিখিত পরীক্ষা (গড় পাস নম্বর ৫০%)

প্রিলিমিনারি টেস্ট-এ কমিশন কর্তৃক কৃতকার্য ঘোষিত প্রার্থীদের ৯০০ নম্বরের বিসিএস লিখিত পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে হয়। নির্ধারিত শিক্ষাগত যোগ্যতা অনুযায়ী ২৬টি ক্যাডার সাধারণ ক্যাডার এবং কারিগরি/পেশাগত ক্যাডার এই দুই ক্যাটাগরিতে বিভক্ত।

ক. সাধারণ ক্যাডারের প্রার্থীদের জন্য ৯০০ নম্বরের লিখিত পরীক্ষা।

খ. কারিগরি/পেশাগত ক্যাডারের প্রার্থীদের ৯০০ নম্বরের লিখিত পরীক্ষা।

ক. সাধারণ ক্যাডারের প্রার্থীদের জন্য লিখিত পরীক্ষার বিষয়ভিত্তিক নম্বর বণ্টন

ক্রমিক নম্বর আবশ্যিক বিষয় নম্বর বণ্টন
১. বাংলা ২০০
২. ইংরেজি          ২০০
৩. বাংলাদেশ বিষয়াবলি ২০০
৪. আন্তর্জাতিক বিষয়াবলি ১০০
৫. গাণিতিক যুক্তি ও মানসিক দক্ষতা ১০০
৬. সাধারণ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ১০০
মোট ৯০০

খ.  কারিগরি/পেশাগত ক্যাডারের প্রার্থীদের জন্য লিখিত পরীক্ষার বিষয়ভিত্তিক নম্বর বণ্টন

ক্রমিক নম্বর আবশ্যিক বিষয় নম্বর বণ্টন
১. বাংলা ১০০
২. ইংরেজি          ২০০
৩. বাংলাদেশ বিষয়াবলি ২০০
৪. আন্তর্জাতিক বিষয়াবলি ১০০
৫. গাণিতিক যুক্তি ও মানসিক দক্ষতা ১০০
৬. পদ-সংশ্লিষ্ট বিষয় ২০০
মোট ৯০০

বিসিএস লিখিত পরীক্ষার বিস্তারিত সিলেবাস

সিলেবাস ডাউনলোড

বিসিএস এ পদ সংশ্লিষ্ট (Job-related) বিষয়ের পরীক্ষা

যে সকল প্রার্থী সাধারণ ও কারিগরি/পেশাগত উভয় ক্যাডারের পদের জন্য পছন্দক্রম দেবেন, তাদেরকে সাধারণ ক্যাডারের জন্য নির্ধারিত বিষয়ের ৯০০ নম্বরের অতিরিক্ত সংশ্লিষ্ট পদ বা সার্ভিসের জন্য প্রাসংগিক বিষয়ের ২০০ নম্বরের লিখিত পরীক্ষা দিতে হয়।

৩য় স্তরঃ বিসিএস-এর ২০০ নম্বরের মৌখিক পরীক্ষা (পাস নম্বর ৫০%)

বিসিএস-এর লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ প্রার্থীদের ২০০ নম্বরের মৌখিক পরীক্ষায় অংশগ্রহণ বাধ্যতামূলক। মৌখিক পরীক্ষায় পাশ নম্বর ৫০%।

বিসিএস-পরীক্ষার সাক্ষাৎকার বোর্ড গঠন

লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ প্রার্থীদের উপযুক্ততা নির্ধারণের জন্য বিসিএস পরীক্ষা বিধিমালার বিধান অনুযায়ী কমিশন নিম্নোক্তভাবে মৌখিক পরীক্ষার বোর্ড গঠন করে থাকেঃ

১. কমিশনের চেয়ারম্যান/সদস্য বোর্ড চেয়ারম্যান
২. সরকার কর্তৃক মনোনীত যুগ্মসচিব বা তদূর্ধ্ব পদমর্যাদার কর্মকর্তা

বোর্ড সদস্য

৩. কমিশন কর্তৃক মনোনীত বিষয়ভিত্তিক বিশেষজ্ঞ বোর্ড সদস্য

 

About admin

Check Also

এসএসসি ইংরেজি ১ম পত্র প্রশ্ন ও সমাধান ২০২৩ সকল বোর্ড | SSC English 1st paper Question Solution 2023

এসএসসি ইংরেজি ১ম পত্র প্রশ্ন ও সমাধান ২০২৩ সকল বোর্ড | SSC English 1st paper Question Solution 2023

এসএসসি ইংরেজি ১ম পত্র বহুনির্বাচনী সমাধান সকল বোর্ডঃ এসএসসি ইংরেজি ১ম পত্র প্রশ্ন ও সমাধান …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *